spot_img

কোরবানীর আগে ও পরে যে বিষয়গুলোতে সতর্ক থাকবেন

অবশ্যই পরুন

আগামীকাল দেশব্যাপী উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। আর এই ঈদে প্রচুর সংখ্যক পশু কোরবানী করা হয়। কোরবানীর পশু কেবল জবাই দিলেই হবে না। জানতে হবে পশু কোরবানির আগে ও পরে কিছু সতর্কতা। চলুন তবে এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক-

কোরবানীর আগে যা করবেন

>> পশু কেনার সময় লক্ষ্য রাখতে হবে, আগে থেকেই গরুর চামড়ায় কোনো গভীর ক্ষত চিহ্ন বা দাগ যেন না থাকে।

>> ঈদের দিন সকাল থেকেই পশুকে খাবার (খড়, ভুসি, কাঁচা ঘাস প্রভৃতি) দেয়া থেকে বিরত থাকুন। তবে পানি বা তরল খাবার খাওয়াতে পারেন। এতে কোরবানির পর পশুর চামড়া ছাড়ানো অনেক সহজ হবে।

>> পশু কোরবানীর জন্য দক্ষ লোক নিয়োগ করুন। নইলে কোরবানির পশুর সমস্যা গতে পারে। জবাইকৃত গরু উঠে দৌঁড় দিতে পারে। তাছাড়া পশুর অতিরিক্ত কষ্ট হতে পারে।

>> কোরবানীর জন্য শোয়ানো অবস্থায় পশুটিকে যেন টানাহেঁচড়া না করা হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

>> কোরবানীর পশু জবাই করার কাজে বড় ও চামড়া ছাড়ানোর কাজে ধারালো মাথা ছুরি ব্যবহার করতে হবে।

কোরবানীর পরে যা করবেন

>> প্রাণীর ধমনী যাতে পুরোপুরি কাটা যায়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। প্রাণী জবাইয়ের পর পুরোপুরি ব্লিডিং হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। জবাইয়ের সঙ্গে সঙ্গে মাংস কাটা শুরু করা হলে মাংসের ভেতর রক্ত থেকে যাবে। এ ধরনের মাংস মোটেও স্বাস্থ্য সম্মত নয়, কারণ রক্তে অনেক ধরনের জীবাণু থাকতে পারে।

>> সাধারণত ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে চামড়ার ক্ষতি ও গুণগত মান নষ্ট হয়ে থাকে। ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে পশুর চামড়াকে রক্ষা করতে বর্তমান বিশ্বে সাধারণত ড্রাই ট্রিটমেন্ট, সল্ট ট্রিটমেন্ট ও ফ্রিজিং করে চামড়া সংরক্ষণ করা হয়।

>> কোনো এলাকার লোকজন বিচ্ছিন্ন স্থানে কোরবানী না দিয়ে বেশ কয়েকজন মিলে একস্থানে কোরবানী করা ভালো।

সর্বশেষ সংবাদ

বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি, স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই দেশে কেউ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ