spot_img

পুরোনো দলে ফিরে খুব ভালো লাগছে: মুকুল রায়

অবশ্যই পরুন

ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ছেড়ে নিজের পুরনো ঠিকানা তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে এলেন  মুকুল রায়। প্রায় দুই দশকে তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড ইন কমান্ড ছিলেন তিনি।

আজ বিকেলে কলকাতায় তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য দপ্তর তৃণমূল ভবনে মুকুল রায়কে আবারও দলে টেনে নিলেন মমতা, বললেন মুকুল রায় তৃণমূল পরিবারের সদস্য ছিলেন। আজ তিনি নিজের ঘরে ফিরতে পেরে শান্তি পেলেন।

পশ্চিমবঙ্গে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে মমতার তৃণমূলের কাছে ভরাডুবি হয়েছে বিজেপির। নরেন্দ্র মোদি–অমিত শাহের ক্যারিশম্যাটিক জুটি মমতার রাজনীতির কাছে পাত্তা পায়নি। ভোটের আগে অনেকেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন। এখন অনেকেই ঘরে (তৃণমূলে) ফিরতে চাইছেন। এই তালিকায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় নাম মুকুল রায়।

তবে মমতা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এবারের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের বিরুদ্ধে একটি কথাও খরচ করেননি মুকুল। তাই তৃণমূল আজ তাঁকে পরিবারের সদস্য হিসেবে ফিরিয়ে এনেছে। তবে যারা বিজেপিতে গিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কুৎসা রটিয়েছে, নিন্দা করেছে, তাদের ফেরানো হবে না।

মমতার পাশে বসে মুকুল রায় সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘বিজেপিতে কাজ করার মতো সুযোগ ছিল না। তাই পুরোনো দলে ফিরে এলাম। খুব ভালো লাগছে। বাংলা আবার নিজের জায়গায় ফিরবে। তৃণমূল আরও জোরদার হবে মমতার নেতৃত্বে।’

১৯৯৮ সালের ১ জানুয়ারি জাতীয় কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে এসে তৃণমূল কংগ্রেস নামে নতুন রাজনৈতিক দলের ঘোষণা দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন দল গড়ার অন্যতম কান্ডারি ছিলেন মুকুল রায়। এরপরের ইতিহাস সবার জানা। পরবর্তী দুই দশকে তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড ছিলেন মুকুল। দলে মমতার পরেই তাঁর জায়গা। তবে মমতা–মুকুল জুটিতেও আসে ভাঙন। বনিবনা না হওয়ায় তৃণমূল ছেড়ে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) পতাকা হাতে তুলে নিয়েছিলেন মুকুল।

২০১৭ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর মুকুল তৃণমূল ছেড়ে যান তিনি। ওই সময় তিনি দলটির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। একই বছরের ৩ নভেম্বর তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। ২০২০ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর মুকুল বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি হন। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে মুকুল নদীয়ার কৃষ্ণনগর উত্তর আসনে বিজেপির প্রার্থী ছিলেন। জয়ও পেয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

সেই রাতে চিত্রনায়িকা পরিমনির ঘটনা নিয়ে মুখ খুললেন জিমি

আজ সোমবার সকালে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও অমিসহ ছয়জনকে আসামি করে...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ