spot_img

সোমবার দেশে টিকা নিয়েছেন ৩ লাখ ৬ হাজার ৯৪৭ জন

অবশ্যই পরুন

করোনায় নতুন শনাক্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যায় প্রতিদিনই নতুন রেকর্ড হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে সবার মধ্যে টিকা নিতে আগ্রহ দেখা গেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর এরই ধারাবাহিকতায় টিকা নিবন্ধনে বেশ সাড়া পেড়েছে। যদিও টিকা প্রদানে এখনও ধীর গতি লক্ষ্য করা গেছে। অবশ্য দেশের জন্য সুÑখবর হচ্ছেÑবিভিন্ন উৎস থেকে দেশে প্রতিদিনই টিকা আসার খবর পাওয়া যাচ্ছে। গতকালও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, এ মাসে আরও ৫০ লাখ টিকা দেশে আসবে।

সূত্র মতে, দুই মাস বন্ধ থাকার পর দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের টিকা নিবন্ধনের শুরুতে এ পর্যন্ত ৮৭ লাখ ৬৫ হাজার ২৬৮ জন নিবন্ধন করেছেন। দেশে গত ২৬ জানুয়ারি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার জন্য নিবন্ধন শুরু হয়। পরে হঠাৎ টিকা অপ্রতুল হওয়ায় মে মাসের প্রথম সপ্তাহে নিবন্ধন বন্ধ করে দেয়া হয়। ওই সময় পর্যন্ত প্রায় ৭৩ লাখ মানুষ টিকা নিতে নিবন্ধন করেন। সোমবার (২ আগস্ট) পর্যন্ত নিবন্ধন সংখ্যা ১ কোটি ৬০ লাখ ৫৮ হাজার ৫২৬ জনে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে এ পর্যন্ত ১ কোটি ৩৭ লাখ ৬৬ হাজার ৭৫৮ ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। আর সোমবার দিনভর টিকা প্রদান করা হয়েছে ৩ লাখ ৬ হাজার ৯৪৭ জনকে।

প্রথম দফায় অগ্রাধিকার তালিকা ছাড়া ৪০ বছরের বেশি বয়সীরা শুধু নিবন্ধন করতে পেরেছিলেন। মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে এবার সরকার টিকা দিতে সাধারণের বয়সসীমা প্রথমে ৩০ এবং পরবর্তীতে ২৫-এ নামিয়ে এনেছে। এর ফলে ২৫ বছর বয়সের বেশি সবাই টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারছেন। এছাড়া আগামী ৭ আগস্ট থেকে দেশব্যাপী ১৮ বছর ঊর্ধ্বে বয়সীদের এনআইডি কার্ড দেখে টিকাদান কর্মসূচি চালু করা হবে।

সূত্র মতে, কোভ্যাক্স থেকে ফাইজার ও মর্ডানার এবং চীন থেকে কেনা সিনোফার্মের প্রথম চালান এলে গত ৭ জুলাই দ্বিতীয় দফায় টিকা নিবন্ধন শুরু হয়। এদিকে ১৭ জুলাই দেশের সিটি করপোরেশন এলাকায় মডার্নার টিকাদান কর্মসূচি চালু হয়েছে। আগের দিন ১৬ জুলাই দেশব্যাপী সিনোভ্যাক টিকা চালু করা হয়। ইতোমধ্যে মধ্যে বিশেষ অগ্রাধিকার হিসেব বয়সসীমার শর্ত শিথিল করে বিদেশগামী কর্মীদের এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীদের নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, সোমবার বেলা সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৬০ লাখ ৫৮ হাজার ৫২৬ জন নিবন্ধন করেছেন। গত ৬ জুলাই পর্যন্ত নিবন্ধনের সংখ্যা ছিল ৭২ লাখ ৯৩ হাজার ২৫৮ জন।

অধিদফতর জানিয়েছে, এ পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৩৭ লাখ ৬৬ হাজার ৭৫৮ ডোজ টিকাদানের মধ্যে প্রথম ডোজ হিসেবে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৫৩টি, ফাইজার-বায়োএনটেকের ৫৩ হাজার ৪২৩টি, সিনোফার্মের ২৭ লাখ ৪২ হাজার ১৮৬টি এবং মডার্নার ৮ লাখ ৪৪ হাজার ২০৯ ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত অক্সফোর্ডের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৪৩ লাখ ৬ হাজার ৮৮৭ জন।

সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ থেকে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল মালয়েশিয়া

চলমান করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশের ওপর আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে মালয়েশিয়া। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ