spot_img

বৌয়ের কারণে বাবাকে ত্যাগ জাদেজার, এবার মুখ খুললেন স্ত্রী রিভাবা

অবশ্যই পরুন

দিন কয়েক আগেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার রবীন্দ্র জাদেজার বাবা। পুত্রবধূ রিভাবার কারণে তাকে ত্যাগ করেছেন জাদেজা। এ ছাড়া একই শহরে থাকা সত্ত্বেও ছেলের সঙ্গে দেখা হয় না, অনিরুদ্ধ সিং জাদেজার এমন অভিযোগে রীতিমতো হইচই পড়ে যায়।

বাবার বিস্ফোরক অভিযোগের পর বউয়ের পক্ষ নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন জাদেজা। তাতেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। এবার জাদেজার স্ত্রীকেও প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হলো। যা শুনে রীতিমতো চটে গেলেন তিনি।

জাদেজার স্ত্রী হওয়ার পাশাপাশি গুজরাটের জামনগর উত্তর বিধানসভার বিজেপি বিধায়কও রিভাবা। দলীয় একটি কর্মসূচিতে তাকে শ্বশুরের করা অভিযোগ নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। প্রশ্ন শুনেই বিরক্ত হন রিভাবা। তিনি বলেন, ‘এখানে আমরা কেন জড়ো হয়েছি? এটা রাজনৈতিক কর্মসূচি। এখানে পারিবারিক প্রশ্নের জবাব দেব না। আপনাদের কিছু জানার থাকলে আমার সঙ্গে অন্য সময় কথা বলুন। সব প্রশ্নের জবাব দিয়ে দেব। আমারও অনেক কিছু বলার আছে।’ স্পষ্ট করে জবাব না দিলেও রিভাবার কথায় স্পষ্ট, তারও অনেক অভিযোগ রয়েছে শ্বশুরের বিরুদ্ধে।

গুজরাটি সংবাদমাধ্যম ‘দিব্য ভাস্কর’–এ দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রথম বিষয়টি সামনে আনেন অনিরুদ্ধসিং। যা নিয়ে পরে ভারতের অন্যান্য সংবাদমাধ্যমও প্রতিবেদন করেছে। অনিরুদ্ধসিং বলেন, ‘আপনি কি চান সত্য কথা বলি? রবীন্দ্র এবং তার স্ত্রী রিভাবার সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। আমরা তাদের কল (ফোন) দিই না, তারাও আমাদের কল (ফোন) দেয় না। তাদের বিয়ের দুই থেকে তিন মাস পরই সমস্যার সূত্রপাত। এখন আমি জামনগরে একাই থাকি। আর রবীন্দ্র আলাদা বাংলোয় থাকে। একই শহরে থাকলেও আমাদের দেখা হয় না। তার স্ত্রী তাকে কী জাদু করেছে আমি জানি না।’

তিনি আরও বলেন, ‘সে (জাদেজা) আমার ছেলে আর এ ব্যাপারটাই আমাকে পোড়ায়। এখন মনে হয় তাকে যদি বিয়ে না করাতাম! সে ক্রিকেটার না হলেও ভালো হতো। তাহলে এখন আর এসব সমস্যায় পড়তে হতো না।’ অনিরুদ্ধসিং—এর দাবি, ‘বিয়ের তিন মাসের মধ্যে সে (রিভাবা) আমাকে বলেছে, সবকিছু তার নামে লিখে দিতে হবে। এটা নিয়ে পরিবারে কলহ তৈরি করে সে। সে পরিবারের অংশ হতে চায়নি, স্বাধীন জীবন চেয়েছে। আমার কিংবা ন্যয়নাবার (জাদেজার বোন) ভুল হতে পারে কিন্তু আপনি বলুন তো, আমার পরিবারের ৫০ জন সদস্য কি একসঙ্গে ভুল করতে পারে? পরিবারের কারও সঙ্গে সম্পর্ক নেই শুধু ঘৃণা ছাড়া। আমি কোনো কিছু লুকাতে চাই না। গত পাঁচ বছর নিজের নাতনির মুখও দেখিনি।’

পরবর্তীতে সেই সাক্ষাৎকার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়ে। যা দেখে নিজের এক্স অ্যাকাউন্টে জবাব দিয়েছেন জাদেজা।  গুজরাটি ভাষায় তিনি লিখেছেন, ‘সাজানো সাক্ষাৎকারে কী বলা হলো, আসুন সেসব বর্জন করি। সন্দেহজনক সাক্ষাৎকারে যা কিছু বলা হয়েছে সেসব অর্থহীন এবং মিথ্যা। সেগুলো একপক্ষীয় মন্তব্য, যা আমি অস্বীকার করি। আমার স্ত্রীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টাটা অনুচিৎ এবং নিন্দনীয়। আমারও অনেক কিছু বলার আছে কিন্তু সবার সামনে সেগুলো না বলাই ভালো।’

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে রিভাবাকে বিয়ে করেন জাদেজা। পরের বছরই এই দম্পতির ঘরে কন্যাসন্তান নিধ্যানার আগমন হয়। জাদেজার স্ত্রী রিভাবা বিজেপি থেকে জামনগর উত্তরের বর্তমান এমএলএ। যেখানে তিনি কংগ্রেস থেকে নির্বাচনে দাঁড়ানো জাদেজার বোন ন্যয়নাবাকে হারিয়ে এমএলএ হয়েছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিকে অভিযান জোরদার হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা অবৈধ ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতালগুলোতে অভিযান আরও জোরদার করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ