spot_img

৩ যুগ পর গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলতে মরক্কো

অবশ্যই পরুন

১৯৮৬ সালের মেক্সিকো বিশ্বকাপে শেষবারের মতো নকআউট স্টেজে খেলেছিল আফ্রিকার দেশ মরক্কো। মাঝে পেরিয়ে গেছে ৩৬ বছর। অবশেষে ৩ যুগ পর পুনরায় নকআউট স্টেজে পা রেখেছে মরক্কো।

কাতার বিশ্বকাপের মঞ্চে ‘এফ’ গ্রুপ থেকে বেলজিয়ামকে টপকে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে মরক্কো। গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে ২-১ গোল জয় পাওয়ায় শেষ ষোলোতে জায়গা নিশ্চিত হয় তাদের। একই গ্রুপের আরেক ম্যাচে আগের আসরের রানার্সআপ ক্রোশিয়ার সঙ্গে ড্র করায় গ্রুপ স্টেজ থেকেই বিদায় নেয় ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে থাকা দল বেলজিয়াম। এফ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট স্টেজে গিয়েছে মরক্কো। আর রানার্সআপ হয়ে নকআউট নিশ্চিত করেছে ক্রোয়েশিয়া।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) ডু অর ডাই ম্যাচে মরক্কোর ফুটবলাররা বল পায়ে ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপে খেলতে আসা কানাডাকে কাঁপিয়ে দেয়। প্রথমার্ধে ছয়টি আক্রমণ করে দুটি গোল আদায় করে নেয় মরক্কো। দলটির পক্ষে গোল করেছেন যথাক্রমে হাকিম জিয়েখ এবং ইউসুফ এন নেসে

মরক্কোর লিডকে ২-০ তে পরিণত করেন ইউসুফ। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে অবশ্য নিজ দলের খেলোয়াড়ের ভুলে একটি গোল হজমও করে বসে মরক্কো।

৪০তম মিনিটে মরক্কোর জালে বল জড়িয়ে ফেলেন তাদেরই ফুটবলার নায়েফ আগার্ড। এবারের আসরে এটিই প্রথম আত্মঘাতি গোলের রেকর্ড। যা কাতার বিশ্বকাপের একশতম গোল।

দ্বিতীয়ার্ধে দুই দল একাধিক সুযোগ তৈরি করলেও গোল ব‌্যবধান কেউ বাড়াতে পারেনি, কেউ কমাতে পারেনি। ম্যাচের ৫৬তম মিনিটে অবশ্য সমতায় ফেরার সুযোগ এসেছিল কানাডার সামনে। তবে সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেন লারিন। ডান দিক থেকে নেয়া ফ্রিকিক লারিনের সামনে দিয়ে গেলেও তিনি বল-পায়ে সংযোগ ঘটাতে পারেনি।

৭১ মিনিটে আটিবা হাচিনসনের হেড ক্রসবারে লেগে ফিরে আসলে আরেকটি সুযোগ হাতছাড়া হয় কানাডার। তবে শেষ পর্যন্ত কোনও দলই আর গোলের দেখা না পাওয়ায় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মরক্কো। সেই সঙ্গে ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপ খেলতে আসা কানাডাকে গ্রুপ স্টেজ থেকেই বিদায় নিতে হলো।

সর্বশেষ সংবাদ

মির্জা ফখরুল হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন: ওবায়দুল কাদের

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হীন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের লক্ষ্যে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ