spot_img

হিজাব ছাড়া ভিডিও দেয়ায় ইরানি তরুণীর ৩ বছরের কারাদণ্ড

অবশ্যই পরুন

দেশের বাধ্যতামূলক হিজাব নিয়মের প্রতিবাদ করে মাথায় হিজাব ছাড়া কয়েক সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করায় ইরানি এক তরুণীকে তিন বছর আট মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে তেহরানের ইসলামিক রেভুলিউশনারি আদালত।

সাজা পাওয়া তরুণী মেলিকা কারাগোজলুর আইনজীবী মোহাম্মদ আলী কামফিরুজি ১৯ সেপ্টেম্বর এক টুইটে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

‘সঠিক নিয়মে’ হিজাব না পরার অভিযোগে গ্রেপ্তারের পর ২২ বছরের মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষোভের আগুনে জ্বলছে ইরান। তেহরানসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় গত কয়েক দিনে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। মাহসার মৃত্যুর পর চলমান বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন অন্তত পাঁচ জন।

এই উত্তাল পরিস্থতির মধ্যেই হিজাব না পরার কারণে মেলিকা কারাগোজলুকে কারাদণ্ড দেয়ার তথ্য জানা গেল।

আরব নিউজের এ প্রতিবেদনে বলা হয়, কারাগোজলু গত ১২ জুলাই দেশব্যাপী ‘আইন-অমান্য’ কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার পর গ্রেপ্তার হন। ওই কর্মসূচির অংশ হিসেবেই তিনি বাধ্যতামূলক হিজাবের প্রতিবাদ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খোলা মাথার ভিডিওটি পোস্ট করেন।

ইরানে ১৯৭৯ সালের ইসলামি বিপ্লবের পরই নারীদের জন্য হিজাব বাধ্যতামূলক করা হয়। ইরানের ধর্মীয় শাসকদের কাছে নারীদের জন্য এটি ‘অতিক্রম-অযোগ্য সীমারেখা’। বাধ্যতামূলক এই পোশাকবিধি মুসলিম নারীসহ ইরানের সব জাতিগোষ্ঠী ও ধর্মের নারীদের জন্য প্রযোজ্য।

সর্বশেষ সংবাদ

রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী বরখাস্ত

রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী দিমিত্রি বুলগাকভবে 'অপসারণ' করে 'অন্য একটি দায়িত্বে' নিয়োগ করা হয়েছে। মস্কোকে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ খবর প্রকাশ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ