spot_img

রাশিয়ার কাছে অস্ত্র বিক্রি ইস্যুতে মুখ খুলল উত্তর কোরিয়া

অবশ্যই পরুন

রাশিয়ার কাছে কোনো প্রকার অস্ত্র বিক্রি করা হয়নি এবং ভবিষ্যতেও বিক্রির পরিকল্পনা নেই বলে দাবি করেছে উত্তর কোরিয়া।

বিবিসি’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাতে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম কেসিএনএ এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে মার্কিন কর্মকর্তারা বলেছিলেন, পিয়ংইয়ং থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ কিনতে যাচ্ছে মস্কো। ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের মধ্যেই ক’দিন আগে মার্কিন কর্মকর্তারা দাবি করে বসেন, উত্তর কোরিয়া থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ কিনতে যাচ্ছে রাশিয়া।

যদিও সেসময় মস্কো তাৎক্ষণিকভাবে অস্বীকার করেছে বিষয়টি। দুই দেশের মধ্যে যেকোন অস্ত্র কেনাবেচা জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার লঙ্ঘন।

চলতি মাসের শুরুতে হোয়াইট হাউস বলেছিল যে, রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধে সমর্থন দেয়ার জন্য কমিউনিস্ট উত্তর কোরিয়ার কাছ থেকে আর্টিলারি শেল এবং রকেট কিনছে।

মার্কিন ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বাস করে যে উত্তর কোরিয়া-রাশিয়ার অস্ত্র ক্রয়ের মধ্যে লাখ লাখ রাউন্ড, রকেট এবং আর্টিলারি শেল অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে।

মার্কিন গোয়েন্দা তথ্যের উদ্ধৃতি দিয়ে, তিনি সেই সময়ে জোর দিয়েছিলেন যে ক্রয় এখনও সম্পূর্ণ হয়নি এবং ইউক্রেনে অস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে এমন কোনো ইঙ্গিত নেই।

মস্কো-মিত্র পিয়ংইয়ং বিবৃতিতে, যুক্তরাষ্ট্রকে আঘাত করে বলেছে যে ওয়াশিংটন এবং অন্যান্য শত্রু বাহিনী উত্তর কোরিয়া এবং রাশিয়ার মধ্যে ‘অস্ত্র লেনদেনের গুজব’ ছড়াচ্ছে।

উত্তর কোরিয়ার সামরিক সরঞ্জাম রপ্তানির অধিকার বজায় রাখার উপর জোর দিয়ে এটি বলেছে, আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে বেপরোয়া মন্তব্য করা বন্ধ করার জন্য সতর্ক করছি।

হোয়াইট হাউস ইঙ্গিত দিয়েছে যে বিচ্ছিন্ন উত্তর কোরিয়ার সরকারের কাছ থেকে আর্টিলারি গোলাবারুদ কেনার পাশাপাশি ইরানের কাছ থেকে সামরিক ড্রোন কেনার একটি চুক্তি করেছে।

সর্বশেষ সংবাদ

রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী বরখাস্ত

রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী দিমিত্রি বুলগাকভবে 'অপসারণ' করে 'অন্য একটি দায়িত্বে' নিয়োগ করা হয়েছে। মস্কোকে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ খবর প্রকাশ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ