spot_img

মা আমি বিশ্বকাপে ডাক পেয়েছি: শরীফুল

অবশ্যই পরুন

প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেস বেলার ও দেশের উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের কৃতী সন্তান শরিফুল ইসলাম।

এ দিকে প্রথম বারের মতো টি-২০ বিশ্বকাপ বাংলাদেশ দলে শরিফুল ইসলাম ডাক পাওয়ায় তার গ্রামের বাড়ি দেবীগঞ্জে বইছে আনন্দের জোয়ার। শরিফুলের এমন অর্জনে তার বাবা-মা, ভাইবোন, আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসী অনেক খুশি।

সত্যিই এক অসাধারণ অনুভূতি, আবেগ, ভালোবাসা আর উচ্ছাস। আর সেটা স্বপ্নময় পরিশ্রমের হলে তো আর কোনো কথাই নেই—এটাই হয়েছে শরিফুলের জীবনে।

দরিদ্র বাবা-মায়ের ঘরে জন্ম নেওয়া শরিফুল ছোট বেলা থেকে খেলার প্রতি বেশ উৎসাহী ছিল। জাতীয় দলের হয়ে খেলার ভাবনা নিয়ে খেয়ে না খেয়ে মাঠে-ময়দানে খেলা নিয়ে ব্যস্ত থেকেছেন। খেলার জন্য করেছেন অনেক কষ্ট-পরিশ্রম।

কথায় আছে চেষ্টা করলে উপায় হয়! যদিও বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হয়েছে আগেই। কিন্তু এবার আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে ডাক পেলেন পঞ্চগড়ের এই সন্তান পেস বোলার শরিফুল ইসলাম।

আর এই আনন্দে শরিফুল তাঁর মাকে ফোন করে বলেন, ‘মা আমি বিশ্বকাপে ডাক পেয়েছি’।

স্থানীয়রা ও পরিবার সূত্রে জানা যায়,শরিফুল ইসলাম ছোটবেলা থেকে খেলার প্রতি বেশ উৎসাহী ছিল। সে মাঠে ময়দানে খেলা নিয়ে ব্যস্ত থাকত। দরিদ্র বাবা-মায়ের ঘরে জন্ম নেয়া শরিফুল খেলার জন্য অনেক কষ্ট করেছে। খেয়ে না খেয়ে শরিফুল প্রথমে রাজশাহী খেলা চর্চা করে। সেখান থেকে ধীরে ধীরে সে আজ জাতীয় দলের একজন গর্বিত সদস্য হয়ে বাংলাদেশের হয়ে মাঠ কাঁপাচ্ছে।

আগামী ১৭ অক্টোবর পর্দা উঠবে বিশ্বকাপের মেগা আসর টি-২০ বিশ্বকাপের। এই বিশ্বকাপকে সামনে রেখে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে অধিনায়ক করে ১৫ সদস্যের মূল দল ঘোষণা করে বিসিবি। আর বিশ্বকাপ টি-২০ স্কোয়াডে প্রথমবারে মতো জায়গা করে নিয়েছে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের শরিফুল ইসলাম।

এ বিষয়ে ক্রিকেটার শরিফুল ইসলামের বাবা দুলাল মিয়া জানান, আমার ছেলে টি-২০ বিশ্বকাপ দলে জায়গা পেয়েছে এতে আমি আজ অনেক আনন্দিত। আমার ছেলের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। আমি এলাকাবাসীসহ দেশবাসীর কাছে আমার ছেলের জন্য দোয়া চাই। সে যেন বিশ্বকাপে ভালো খেলা উপহার দিতে পারে। সবাই শরিফুলের জন্য দোয়া করবেন।

একই কথা বলেন শরিফুলের মা বুলবুলি বেগম তিনি বলেন, শরিফুল আমাকে ফোন করে যখন বলল মা আমি বিশ্বকাপে ডাক পেয়েছি। খবরটি শোনা মাত্রই আমার আনন্দে বুকটা ভরে গেছে। আমার ছেলের এত দিনের কষ্ট আজ সার্থক হয়েছে। আমি নামাজ পড়ে ছেলের জন্য দোয়া করি। সে যেন সব সময় ভালো খেলতে পারে। দেশের জন্য ভালো কিছু উপহার দিতে পারে। আমার ছেলে যেন বাংলাদেশের হয়ে ভালো খেলা উপহার দিয়ে আবার আমার বুকে ফিরে আসতে পারে তার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

এ দিকে দণ্ডপাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জামেদুল ইসলাম বলেন, শরিফুল ইসলাম আমাদের দণ্ডপাল ইউনিয়ন তথা পুরো পঞ্চগড় জেলার গর্ব। যে গ্রামের ছেলে মাঠে ঘাটে খেলে বেড়াতো, সেই ছেলে আজ বিশ্বকাপের মাঠে খেলবে এটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া। আমি শরিফুলের জন্য সবার কাছে দোয়া চাই, সে যেন আবারো ভালো খেলা দেশবাসীকে উপহার দিতে পারে। তার জন্য অনেক শুভ কামনা রইল।

দেবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রত্যয় হাসান বলেন, দেবীগঞ্জের ছেলে আজ বিশ্বকাপে ডাক পেয়েছে এটা আমাদের গৌরব। আমরা আশাবাদী সে বিশ্বকাপে ভালো বোলিং করে সুন্দর খেলা উপহার দিবে।

সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ থেকে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল মালয়েশিয়া

চলমান করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশের ওপর আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে মালয়েশিয়া। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ