spot_img

ইংল্যান্ডের বাংলাদেশ সফর দেড় বছর পিছিয়ে গেল

অবশ্যই পরুন

তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে আগামী সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের। কিন্তু হঠাৎ-ই সিরিজটি স্থগিতের খবর ছড়িয়ে পড়ে। সোমবারই এ নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছিলেন, সিরিজটির সূচি পুননির্ধারণ করতে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

সেই যোগাযোগের ফল এসেছে। দুই বোর্ড মিলে সিরিজটির নতুন সূচি ঠিক করেছে। আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের এই সিরিজটি দেড় বছর পিছিয়ে গেছে। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে ২০২৩ সালের মার্চে বাংলাদেশে আসবে ইংল্যান্ড। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়েছে বিসিবি।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সমঝোতার ভিত্তিতে দুই বোর্ড সিরিজটি সূচি পুননির্ধারণ করেছে। ২০২৩ সালে মার্চের প্রথম দুই সপ্তাহের মধ্যে বাংলাদেশ সফরে আসবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ দুটি অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর ও চট্টগ্রামে।

বাংলাদেশ সফর পিছিয়ে যাওয়ায় ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের আইপিএলে খেলার অনুমতি দেওয়া হবে। করোনাভাইরাসের কারণে মাঝপথে বন্ধ হয়ে যাওয়া আইপিএলের বাকি অংশ ১৯ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হবে। এখানে অনুষ্ঠিত হবে বাকি ২৯টি ম্যাচ।

আগামী ১৭ অক্টোবর আরব আমিরাতেই শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। প্রস্তুতির কথা ভাবলে আইপিএলে খেলাই ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের জন্য সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত হতে পারে। তবে এটার কারণেই যে সিরিজটি পিছিয়ে গেছে, সেটা উল্লেখ করেনি কোনো বোর্ডই।

যেসব ক্রিকেটার আইপিএল খেলবেন না, ওই সময়ে তারা বিশ্রামে থাকবেন। করোনাকালীন সময়ে জৈব সুরক্ষা বলয়ের ধকল কাটিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেবেন তারা। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়াতে অ্যাশেজের প্রস্তুতিতেও মনোযোগ দেওয়ার সুযোগ থাকবে।

সর্বশেষ সংবাদ

বাংলাদেশ থেকে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল মালয়েশিয়া

চলমান করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশের ওপর আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে মালয়েশিয়া। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ