spot_img

চীনের পরিবর্তে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ব্লুমবার্গ ফোরাম

অবশ্যই পরুন

চলতি বছর ব্লুমবার্গ নিউ ইকোনমি ফোরাম চীনে নয় সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জসমূহ এবং এর সমাধান নিয়ে আলোচনার জন্য এ সম্মেলনটিতে সমবেত হন বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ি ও সরকার প্রধানরা। ব্লুমবার্গের প্রতিষ্ঠাতা মাইকেল ব্লুমবার্গ জানিয়েছেন এবারের সম্মেলনটি চীনে না হওয়ার অন্যতম কারণ সেখানে সাংবাদিকদের ‘উদ্বেগজনক পরিস্থিতি’। ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে তিনি এ কথা জানিয়েছেন।

সম্প্রতি প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামি ১৬-১৯ নভেম্বর সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হবে। এবারে অংশগ্রহীতাদের সংখ্যা মাত্র ৪০০ জনে সীমিত রাখা হয়েছে। স্থিতিশীলতার পাশাপাশি কোভিড-১৯ এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশ কিভাবে এই মহামারীর প্রভাব থেকে নিজেদের পুনরুদ্ধার করবে এবারের সম্মেলনে এসব বিষয়েও আলোচনা করা হবে।

অভিজাতদের এই সম্মেলনটি গত বছর কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। এ সম্মেলনটিতে নামিদামি অতিথিদের তালিকায় শীর্ষস্থানীয় গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি টেসলার প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা এলন মাস্কও ছিলেন।

মাইকেল ব্লুমবার্গ জানিয়েছেন, এবারের সম্মেলন সিঙ্গাপুরে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়ার আরেকটি কারণ ‘লজিস্টিক’। তবে তার এ মন্তব্যের ব্যাখ্যা করে কোম্পানিটির পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয় নি।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না। তবে তিনি বলেছেন, ‘চীনে সাংবাদিকদের সাক্ষাতকার গ্রহন এবং প্রতিবেদন তৈরির আইনি অধিকার পুরোপুরি আইনিভাবেই সুরক্ষিত।’

গত মার্চে ফরেন করসপন্ডেন্টস ক্লাব অব চীনের (এফসিসি) পক্ষ থেকে বলা হয়, বেইজিং ২০২০ সালে বিদেশি প্রতিবেদন সীমাবদ্ধ করতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ পদক্ষেপ, ভয় দেখানো এবং ভিসা নিষেধাজ্ঞার মতো কর্মসূচি গ্রহন করেছিলো। এরফলে ‘সেখানে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ব্যাপকভাবে খর্ব হয়েছিলো।’

গত বছর চীন কর্তৃপক্ষ ব্লুমবার্গ নিউজে কর্মরত চীনা সাংবাদিক হাজে ফ্যানকে আটক করে। এছাড়াও চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত্ব গণমাধ্যমের সাংবাদিক এবং অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক চেং লেইকে জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি হুমকি সন্দেহে আটক করা হয়। উভয়েই এখনো কারাগারে আটক রয়েছেন।

২০১৮ সালে ব্লুমবার্গ নিউ ইকোনমিক ফোরামের প্রথম সম্মেলনটি বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য যুদ্ধের কারণে তা সিঙ্গাপুরে আয়োজন করা হয়েছিলো। এরপরের বছর সম্মেলনটি চীনে অনুষ্ঠিত হয় এবং ২০২০ সালেও চীন থেকেই ভার্চুয়ালি এর আয়োজন করা হয়েছিলো।

সিঙ্গাপুরে সম্মেলন আয়োজন অভিজ্ঞতা সম্পর্কে ব্লুমবার্গের মিডিয়ার গ্লোবাল সিইও জাস্টিন স্মিথ বলেন, তিন বছর আগে ফোরামটির অভিষেক অনুষ্ঠানের আয়োজনের অভিজ্ঞতা বেশ ভালো। দেশটিতে স্বাস্থ্য প্রটোকল কঠিনভাবে মেনে চলার কারণে এখানে সম্মেলন আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ হয়েছে। সূত্র: রয়টার্স

সর্বশেষ সংবাদ

মসজিদে নববীর সেই শতবর্সী কোরআনপ্রেমীর ইন্তেকাল

সুদূর ইমাম বোখারির দেশ থেকে তিনি এসেছিলেন সবুজ গম্বুজের টানে। প্রিয় নবীজির ভালোবাসায়, মসজিদে নববীর খেদমতে এবং রওজায়ে আতহারের...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Powered by Live Score & Live Score App