spot_img

ফাঁস হওয়া টেপের মন্তব্যে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তিরস্কার খামেনির

অবশ্যই পরুন

ফাঁস হওয়া অডিও টেপে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাওয়াদ জারিফকে তিরস্কার করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। রোববার এক টেলিভিশন ভাষণে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর বিষয়ে স্পর্শকাতর মন্তব্যের জন্য জারিফকে তিরস্কার করেন তিনি।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নাম উল্লেখ না করেই আয়াতুল্লাহ খামেনি বলেন, ফাঁস হওয়া অডিও টেপে প্রকাশিত মন্তব্যে তিনি বিস্মিত ও দুঃখিত।

তিনি বলেন, ‘এই মন্তব্যের কিছু আমাদের দুশমনদের শত্রুতামূলক মন্তব্যের পুনরাবৃত্তি, আমেরিকার মন্তব্যের পুনরাবৃত্তি।’

তিন ঘণ্টার এই অডিওটেপটি মূলত ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির ক্ষমতাকালীন সময়ে মৌখিক ইতিহাস সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের অধীনে নেয়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাওয়াদ জারিফের সাত ঘণ্টার গোপনীয় ভিডিও সাক্ষাতকারের অংশ ছিল বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়।

গত ২৫ এপ্রিল লন্ডনভিত্তিক সৌদি অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত ফারসি ভাষার সংবাদমাধ্যম ইরান ইন্টারন্যাশনালে ফাঁস হওয়া এই অডিও টেপ সম্প্রচার করা হয়।

ফাঁস হওয়া অডিও টেপে জারিফকে বলতে শোনা যায়, ইরানি ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) অভিযানের জন্য তার কূটনৈতিক কার্যক্রমকে ‘কোরবানি’ দিতে হয়েছে।

অডিও টেপে তিনি আরো বলেন, আইআরজিসির বিশেষ কুদস ফোর্সের সাবেক অধিনায়ক জেনারেল কাসেম সোলাইমানি প্রায়ই তার সাথে দেখা করে কী করতে হবে তার দিকনির্দেশনা দিতেন।

জারিফ বলেন, জেনারেল সোলাইমানিই কার্যত ইরানকে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে টেনে নিয়ে গেছেন। কারণ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন চেয়েছিলেন সিরিয়ার সরকারকে সমর্থন করে রাশিয়া যে বিমান অভিযান চালাবে তাতে সহায়তা করার জন্য ইরান বাহিনী যেন স্থলযুদ্ধে অংশ নেয়।

এছাড়া তার বিরোধিতা সত্ত্বেও ইরানের জাতীয় বেসরকারি বিমান সংস্থা ইরান এয়ারকে সিরিয়ায় বাশার আল-আসাদের পক্ষে অভিযানের সমালোচনাও করেন তিনি।

গত বছরের জানুয়ারিতে বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় কাসেম সোলাইমানি নিহত হন।

আয়াতুল্লাহ খামেনি তার ভাষণে বলেন, ‘আমাদের এমন কিছু বলা উচিন নয় যা অর্থের দিক থেকে তাদের কথারই পুনরাবৃত্তি করে, তা কুদস ফোর্স সম্পর্কে হোক বা শহীদ সোলাইমানি সম্পর্কে হোক।’

এর আগে রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে এক বার্তায় জেনারেল কাসেম সোলাইমানির বিষয়ে মন্তব্যের জন্য তার পরিবারের কাছে ক্ষমা চান জাওয়াদ জারিফ।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার বার্তায় বলেন, ‘আমি আশা করি ইরানের মহান জনগণ, জেনারেলকে ভালোবাসা ব্যক্তিরা ও বিশেষ করে সোলামানির মহান পরিবার আমাকে ক্ষমা করবেন।’

প্রকাশের জন্য তার ওই সাক্ষাতকার ছিলো না মন্তব্য করে বার্তায় তিনি বলেন, ‘যদি আমি জানতাম এই মন্তব্য প্রকাশ্যে আসবে, আমি তাহলে কখনোই এভাবে উক্তি করতাম না।’

ভবিষ্যতে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনের স্বার্থে সাক্ষাতকারে তার এই ‘অকপট’ উক্তি ছিল বলে মন্তব্য করেন জারিফ।

ফাঁস হওয়া অডিও টেপে ইরানের সংস্কারবাদী জোটের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ জাওয়াদ জারিফের এই মন্তব্য তাকে রক্ষণশীল জোটের অব্যাহত সমালোচনার লক্ষ্যবিন্দুতে পরিণত করেছে। ইরানি রক্ষণশীল জোট জারিফের মন্তব্যের জেরে তার পদত্যাগের দাবি করেছেন।

অডিও টেপ ফাঁস হওয়ার জেরে ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি গত সপ্তাহে মন্তব্য করেন, ইরানের শত্রুরা দেশের অভ্যন্তরে বিরোধের বীজ বুনছে যাতে করে ভিয়েনার আলোচনার মাধ্যমে ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার সম্ভব না হয় এবং ইরানের পরমাণু কর্মসূচিকে বাধা দেয়া যায়।

অডিও টেপ ফাঁসের ঘটনার ইতোমধ্যে গোয়েন্দা বিভাগকে তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

সূত্র : আলজাজিরা ও টিআরটি ওয়ার্ল্ড

সর্বশেষ সংবাদ

ঈদের জামাত নিয়ে নির্দেশনা দিলো সৌদি আরব

মধ্যপ্রাচ্যর দেশ সৌদি আরবে আজ  ছিলো মঙ্গলবার ২৯ রমজান। সৌদির আকাশে আজ পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। চাঁদ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ