spot_img

সৌদিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

অবশ্যই পরুন

সৌদি আরবের দু’টি তেল স্থাপনা-সহ বিভিন্ন স্থান লক্ষ্য করে দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র ও অন্তত ১৭টি ড্রোন নিক্ষেপ করেছে ইয়েমেনের বিদ্রোহীগোষ্ঠী হুথি। তবে সৌদি কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার বিষয়ে নিশ্চিত করেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

সোমবার ইরান সমর্থিত ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীগোষ্ঠী পরিচালিত আল মাসিরাহ টেলিভিশনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থাপনায় ১৭টি ড্রোন ও দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে হুথি। এর মধ্যে অন্তত ১০টি ড্রোন সৌদি আরবের জুবাইলে এবং জেদ্দায় অবস্থিত রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি আরামকোর তেল শোধনাগার লক্ষ্য করে ছোড়া হয়েছে।

তবে হামলার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে সৌদি কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেনি। আরামকো বলছে, তারা প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া আরো পরের দিকে জানাবে। এদিকে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেওয়া এক বিবৃতিতে হুথির সামরিক মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারিয়া বলেছেন, সৌদি আরব লক্ষ্য করে ১৭টি ড্রোন এবং দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে।

সারিয়া বলছেন, সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলের খামিস মুশাইত এবং জাজানে সেনাবাহিনীর স্পর্শকাতর স্থাপনাও লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করা হয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের হামলা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ১৫ মার্চ সৌদির দক্ষিণাঞ্চলের একটি বিমানবন্দর এবং একটি সামরিক ঘাঁটিতে সশস্ত্র ড্রোন হামলা চালানোর দাবি করে বিদ্রোহীগোষ্ঠী হুথি।

পরে গত ২৩ মার্চ দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় আভা বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালায় এই বিদ্রোহী গোষ্ঠী। ইয়েমেনে যুদ্ধবিরতির লক্ষ্যে রিয়াদের নতুন শান্তি পরিকল্পনার প্রস্তাব দেওয়ার পরদিন ইরান সমর্থিত হুথি সৌদিতে হামলার দাবি করে।

২০১৫ সালের শুরুর দিকে হুথি বিদ্রোহীদের হামলার মুখে সৌদি-সমর্থিত ইয়েমেনের ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর আল হাদি ক্ষমতা ছেড়ে সৌদি আরবে পালিয়ে যান। ক্ষমতাচ্যুত এই প্রেসিডেন্টকে ফেরাতে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনে হুথিদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে।

যদিও ইয়েমেনের এই সংঘাতকে মধ্যপ্রাচ্যে আধিপত্যের লড়াইয়ে সৌদি-ইরানের ছায়াযুদ্ধ হিসেবে দেখা হয়। মধ্যপ্রাচ্যের এই যুদ্ধে ইয়েমেনের লাখ লাখ মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে এবং বাস্ত্যুচুত হয়েছেন লাখো মানুষ। চলমান এই সংঘাতে ইয়েমেন চরম দুর্ভিক্ষের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেছে বলে সতর্ক করে দিয়েছে জাতিসংঘ।

সর্বশেষ সংবাদ

মিষ্টি নিয়ে পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বীর বাড়িতে গেলেন জুন মালিয়া!

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি তৃণমূল রাজনৈতিক রেষারেষি মধ্যেই বুধবার মেদিনীপুর কেন্দ্রে তার প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত প্রার্থী শমিত দাসের বাড়িতে ফুল ও মিষ্টি...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ