spot_img

কুমারিত্ব পরীক্ষায় ফেল, অতঃপর…

অবশ্যই পরুন

নারী স্বাধীনতা ও সুরক্ষার বিষয়ে সারা দুনিয়া এখন উচ্চকিত। কিন্তু এরই মধ্যেও বঞ্চনা-বৈষম্যের শেষ নেই নারীদের। অবিচার শোষণে বিষিয়ে ওটে নারীদের জীবন।

তেমনই এক অদ্ভুত ঘটনার শিকার হয়েছে ভারতের দুই বোন। বিয়ের পর কুমারিত্ব পরীক্ষায় নাকি তারা ফেল করেছে। এ অভিযোগে তাদের সংসার ভাঙার নির্দেশ দিয়েছে সমাজপতিরা।

জিনিউজ জানিয়েছে, বিয়ের কিছুদিন পর তাদের স্বামী গ্রাম্য পঞ্চায়েতে তালাকের আবেদন জানান। তাদের অভিযোগ স্ত্রীরা কুমারীত্ব পরীক্ষায় ফেল করেছে। দুর্ভাগ্যের বিষয় তাদের সেই আবেদনে সম্মতি দিয়েছে পঞ্চায়েতও। এ ঘটনায় স্বামী, শাশুড়ি এবং পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুই বোনকে বিবাহ বিচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছিলেন দু’জনের স্বামী, তার শাশুড়ি ও পঞ্চায়েতের সদস্যরা। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মহারাষ্ট্র পুলিশ বাদী হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি এবং মহারাষ্ট্র সামাজিক বয়কট (প্রতিরোধ, নিষিদ্ধকরণ ও প্রতিরোধ) আইনের অধীনে মামলা করেছে।

দুই বোনের অভিযোগ, বিয়ের পরে তাদের দু’জনকে শ্বশুরবাড়িতে আলাদা কক্ষে নিয়ে কুমারীত্ব পরীক্ষা করা হয়। জানানো হয়, এটাই নাকি তাদের ঐতিহ্য। পরে তারা দাবি করে, দু’জনই কুমারীত্ব পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়েছেন। এরপর অভিযোগ করা হয় তাদের বিয়ের আগেই অন্য কারও সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক ছিল। যে কারণে তাদের কুমারিত্ব নেই।

সর্বশেষ সংবাদ

মিষ্টি নিয়ে পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বীর বাড়িতে গেলেন জুন মালিয়া!

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি তৃণমূল রাজনৈতিক রেষারেষি মধ্যেই বুধবার মেদিনীপুর কেন্দ্রে তার প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত প্রার্থী শমিত দাসের বাড়িতে ফুল ও মিষ্টি...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ