spot_img

সমুদ্র সীমানায় ভারতের দাবি ‘মাত্রাতিরিক্ত’ বলে মন্তব্য পেন্টাগন মুখপাত্রের

অবশ্যই পরুন

আরব সাগরে ভারতের ভূখণ্ড লাক্ষা দ্বীপপুঞ্জকে পাশ কাটিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজের পারাপারের পরিপ্রেক্ষিতে নয়াদিল্লির উদ্বেগে পেন্টাগনের এক মুখপাত্র মন্তব্য করেছেন, সমুদ্র সীমানায় ভারতের দাবি মাত্রাতিরিক্ত। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন।

ওয়াশিংটন ডিসিতে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পেন্টাগনের প্রেস সেক্রেটারি জন কিরবি সাংবাদিকদের বলেন, মার্কিন নৌবাহিনীর জাহাজ ইউএসএস জন পল জোনস সমুদ্রযাত্রার অধিকার ও স্বাধীনতা নিয়ে মালদ্বীপের কাছ দিয়ে ‘পূর্ব অনুমতি ছাড়া দেশটির এক্সক্লুসিভ ইকোনমিক জোন দিয়ে নির্দোষ চলাচল’ করেছে।

কিরবি বলেন, এই যাতায়াত আন্তর্জাতিক আইনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্র আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে এই যাতায়াতের অধিকার চর্চা করবে।

জন কিরবিকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমরা সারাবিশ্বেই এটি করবো। এটি শুধু চীন ও তাদের মাত্রাতিরিক্ত সমুদ্রসীমার দাবির ক্ষেত্রেই নয়, সারাবিশ্বের জন্য এই কাজ আমরা করবো।’

এর আগে শুক্রবার পূর্ব অনুমতি না নিয়ে ভারতীয় সমুদ্রসীমায় মার্কিন যুদ্ধজাহাজ পার হওয়ায় উদ্বেগ জানিয়ে বিবৃতি দেয় ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘পারস্য উপসাগর থেকে মালাক্কার পথে থাকা ইউএসএস জন পল জোনসের গতিবিধি আমাদের সার্বক্ষণিক নজরে আছে। বর্তমানে জাহাজটি যে স্থানে আছে, তা লাক্ষা দ্বীপপুঞ্জের কাছে এবং ভারতের সমুদ্রসীমার এক্সক্লুসিভ ইকোনমিক জোন (ইইজেড) অন্তর্ভুক্ত। পূর্ব অনুমতি না নিয়ে ইইজেপে অস্ত্র ও গোলাবারুদ সমৃদ্ধ যুদ্ধজাহাজ প্রবেশ করার ভারত সরকার উদ্বেগে রয়েছে এবং এই বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান করছে।’

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া ও হিন্দুস্তান টাইমস

সর্বশেষ সংবাদ

করোনাভাইরাসকে ‘জৈব’ অস্ত্র করার পরিকল্পনা পাঁচ বছর আগেই করেছিল চীন!

করোনাভাইরাসকে ‘জৈব’ অস্ত্ররূপে গড়ে নেওয়ার পরিকল্পনা বছর পাঁচেক আগেই হয়েছিল চীনে! ফাঁস হওয়া একটি চীনা নথির বরাতে এমনই তথ্য...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ