spot_img

মিয়ানমারে গৃহযুদ্ধ হতে পারে: রাশিয়া

অবশ্যই পরুন

পশ্চিমা দেশগুলোর অবরোধ ও নিষেধাজ্ঞা মিয়ানমারে গৃহযুদ্ধ বাঁধিয়ে দিতে পারে বলে সতর্ক করেছে রাশিয়া।

তবে, জান্তা সরকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরো কঠোর করার কথা ভাবছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

মস্কো বলছে, অবরোধের মত পদক্ষেপগুলো দেশটিতে বিভেদ ও সংঘাত আরো বাড়িয়ে তুলবে। মিয়ানমারের কাছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র বিক্রি করে রাশিয়া। এছাড়া জান্তা সরকারের অন্যতম মিত্র মস্কো।

অন্যদিকে ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, শিগগিরই সামরিক সরকার সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির বিরুদ্ধে আরো নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে ইইউ।

এদিকে আজ দেশটিতে চীনা পণ্য পোড়ানোর কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। মঙ্গলবার ইয়াংগুনে রাস্তায় লাল রং ছুঁড়ে প্রতিবাদ জানায় আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভে নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিতে ৫৭০ জনেরও বেশি নিহতের ঘটনায় এই প্রতীকী কর্মসূচি তাদের।

এর আগে, গত ১ ফেব্রুয়ারি তাতমাদাও নামে পরিচিত মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী দেশটিতে সেনা অভ্যুত্থান ঘটায় এবং প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট ও স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চিসহ রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেপ্তার করে। সাথে সাথে দেশটিতে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করা হয় গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে বিতর্কের জেরে এই অভ্যুত্থান ঘটায় সামরিক বাহিনী।

সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে মিয়ানমারের বিভিন্ন শহরেই বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীরা অং সান সু চিসহ বন্দী রাজনৈতিক নেতাদের মুক্তির পাশাপাশি সামরিক শাসন প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছেন।

সর্বশেষ সংবাদ

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১৭ এপ্রিল) সকালে ধানমন্ডি-৩২ এ প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শ্রদ্ধা জানান...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ