spot_img

শাহরুখকে পেছনে ফেলে দিলেন এরতুগ্রুল!

অবশ্যই পরুন

জনপ্রিয় তুর্কি টেলিড্রামা ‘ডিরিলিস: এরতুগ্রুল’এর প্রধান চরিত্র ‘এরতুগ্রুল’ ইউটিউব সার্চে পেছনে ফেলে দিয়েছেন বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানকে। সম্প্রতি এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানান, এরতুগ্রুলের প্রযোজনা সংস্থা টিআরটি’র সিনিয়র কর্মকর্তা রিয়াদ মিন্টি।

এছাড়াও হায়দ্রাবাদের মাওলানা আজাদ জাতীয় উর্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই অধ্যাপক ‘ডিরিলিস: এরতুগ্রুল’নিয়ে এক গবেষণায় ড্রামাটির জনপ্রিয়তার তথ্য তুলে ধরেছেন। এরতুগ্রুল ভারতে কীভাবে এতটা জনপ্রিয়তা পেল, তা নিয়ে বিশদে সমীক্ষা করেছেন সমাজতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক শাহীদ মিও ও ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ইকরামুল হক।

অধ্যাপক শাহীদ মিও বলেন, ‘আমি যখন কাশ্মীরি ছাত্রদের আজকাল অনলাইনে ক্লাস নিই, ব্যান্ডউইথের সমস্যায় তারা আমাকে ঠিকমতো শুনতেই পান না। অথচ সেই একই ছাত্ররা আমাকে বলেন, এরতুগ্রুলের একটা এপিসোডও ছাড়া যাবে না। দুর্বল নেট নিয়েই, বাফারিং সহ্য করেই তারা হুমড়ি খেয়ে পড়েন মোবাইল ফোনে’।

২০১৭ সালের অক্টোবরে নেটফ্লিক্স তুরস্কের এই ঐতিহাসিক ড্রামাটি অনলাইনে স্ট্রিম করতে শুরু করার পরই ভারতে তা প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তুমুল সাড়া ফেলে।

অধ্যাপক ইকরামুল হক বলেন, ‘আজকের ভারতবর্ষে মুসলিমরা যে আত্মপরিচয়ের সঙ্কট বা আইডেন্টিটি ক্রাইসিসে ভুগছেন, সেই শূন্যতার জায়গা থেকেই হয়তো তারা ভিনদেশি এই ঐতিহাসিক উপাখ্যানের সঙ্গে নিজেদের অনেকটা ‘রিলেট’ করতে পারছেন। আর সে কারণেই এরতুগ্রুল এদেশেও এতটা জনপ্রিয় হয়েছে।’

গবেষণা রিপোর্টটির অন্যতম লেখক ড. হক বলেন, ‘টানটান গল্প, নাটকীয়তায় ভরা প্লট, দারুণ অভিনয় আর দুর্ধর্ষ স্পেশাল এফেক্টস একটা বড় ফ্যাক্টর। এরতুগ্রুল একবার দেখতে বসলে সেটা ছেড়ে ওঠাই মুশকিল।

সর্বশেষ সংবাদ

কানাডায় স্থায়ী বসবাসের সুযোগ পাচ্ছেন ৯০ হাজার অভিবাসী

কানাডার অভিবাসন, শরণার্থী ও নাগরিকত্ব মন্ত্রী মার্কো ই. এল মেন্ডিসিনো ৯০ হাজারেরও বেশি প্রয়োজনীয় কর্মী এবং আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী স্নাতক,...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ