সু চির পর মামলায় জর্জরিত ক্ষমতাচ্যুত বার্মিজ প্রেসিডেন্টও

0
52
NAY PYI TAW, MYANMAR - MARCH 11: Win Myint, lower house speaker, are seen at parliament in Myanmars capital Nay Pyi Taw on after two nominees from Aung San Suu Kyis National League for Democracy (NLD) have been confirmed as candidates for the Myanmar presidency following a vote by both houses of parliament on March 11, 2016. Htin Kyaw, highly tipped to take presidential post, wins vote in lower house; to compete against fellow NLD nominee and military-appointed nominee (Photo by Aung Naing Soe/Anadolu Agency/Getty Images)

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির পর মামলায় জর্জরিত অবস্থাতে আছেন প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টও। এবার তার বিরুদ্ধে নতুন আরও দুটি অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মিন্টের আইনজীবী।

যার মধ্যে সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগও রয়েছে বলে দাবি আইনজীবী খিন মুং জের। বুধবার (৩ মার্চ) তিনি জানিয়েছেন, এই অভিযোগে সর্বোচ্চ তিন বছর কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি বিতর্কিত সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করার কয়েক ঘণ্টা আগে ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসির (এনএলডি) নেত্রী অং সান সু চির পাশাপাশি উইন মিন্টকেও গ্রেপ্তার করে বার্মিজ সেনাবাহিনী।

গ্রেপ্তারের পর মিন্টের বিরুদ্ধে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে জারি করা বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়।

মিন্টের শুনানির দিন কবে নির্ধারণ করা হয়েছে তা জানা যায়নি বলে জানিয়েছেন আইনজীবী মুং জ।

সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকেই মিয়ানমারজুড়ে অস্থিরতা বিরাজ করছে। গত প্রায় চার সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন দেশটিতে সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হচ্ছে। প্রথম দিকে সংযম দেখালেও গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ দমনে সহিংস পন্থা নিয়েছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী।

এতে এ পর্যন্ত অন্তত ২১ প্রতিবাদকারী নিহত হয়েছেন। একজন পুলিশ সদস্যও নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here