হোয়াইট হাউস ছাড়লেও পেনশন হিসেবে যে সুবিধাগুলো পাবেন ট্রাম্প

অবশ্যই পড়ুন

প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হলো সুচিকে

গত ১লা ফেব্রুয়ারি মিয়ানমার সামরিক জান্তা কর্তৃক ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর দেশটির বেসামরিক নেত্রী অং সান সুচিকে আজ সোমবার প্রথমবারের...

ইরানের সিদ্ধান্তে হতাশায় বাইডেন

পরমাণু সমঝোতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান অনানুষ্ঠানিকভাবে আলোচনায় বসার ইউরোপীয় প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হতাশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন...

১০ বছরে দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী হয়েছে : অর্থমন্ত্রী

গত ১০ বছরে দেশের অর্থনীতি শক্তিশালী হয়েছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের অর্থনৈতিকভাবে...

পুলিশের সমালোচনাকারীদের মুখে ছাই পড়ুক : আইজিপি

জাতীয় প্রেসক্লাবে পুলিশ ও ছাত্রদলের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো...

রাবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ১৪ জুন, আবেদন ৭ মার্চ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) অনার্স (সম্মান) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ১৪ জুন...

অবসর নেওয়ার পর সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিজাত এলাকায় অফিস পরিচালনার জন্য পাবেন বিশাল জায়গা। যার যাবতীয় খরচ বহন করবে সরকার। এছাড়া ওই অফিসে যেসব কর্মী কাজ করবেন, সরকার বহন করবে তাদের খরচও। সাথে বিভিন্ন ভ্রমণ ও টেলিফোন খরচ বাবদ ভাতাও পাবেন ‘সাবেক’ হতে চলা এই প্রেসিডেন্ট।

শুধু প্রেসিডেন্ট নয়, বরং অবসর নেওয়ার পর সরকারি সুবিধা পাবেন প্রেসিডেন্টের পরিবারও। ট্রাম্প ও তার পরিবারের জন্য সিক্রেট সার্ভিসের নিরাপত্তা রক্ষার সুবিধার সব খরচই বহন করবে সরকার। এছাড়া সাবেক প্রেসিডেন্টের স্বামী বা স্ত্রী আজীবন পেনশন পাবেন বছরে ২০ হাজার ডলার।

আমেরিকার সংবিধানের রীতি অনুযায়ী, সব সাবেক প্রেসিডেন্টই বেতন পান প্রেসিডেন্টের ক্যাবিনেটের সদস্যদের মাইনের মতো। ২০১৭ সালে এর পরিমাণ ছিল বছরে ২ লাখ ৭ হাজার ৮০০ ডলার। আমেরিকার যে ৪৪ জন প্রেসিডেন্ট অবসরে গিয়েছেন, তাদের সবার জন্যই সরকার এসব সুবিধা দিয়ে আসছে।
২০২০ সালের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করে ২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন জো বাইডেন।

সরকারি এমন সব সুবিধা ছাড়াও আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্টরা আত্মজীবনী লিখে, কর্পোরেট সংস্থার পরিচালনা বোর্ডের সদস্য হয়ে বা বিশ্বের নানা প্রান্তে আমন্ত্রণী বক্তৃতা দিয়েও উপার্জন করেন। আমেরিকার সংবিধানে সেই অধিকার দেওয়া হয়েছে।

সূত্র : বিবিসি

- Advertisement -
- Advertisement -

সর্বশেষ সংবাদ

প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হলো সুচিকে

গত ১লা ফেব্রুয়ারি মিয়ানমার সামরিক জান্তা কর্তৃক ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর দেশটির বেসামরিক নেত্রী অং সান সুচিকে আজ সোমবার প্রথমবারের...
- Advertisement -

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

- Advertisement -