36 C
Dhaka
রবিবার, এপ্রিল ৫, ২০২০

করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এলেন ক্রিকেটাররা

অবশ্যই পরুন

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

ম্যানচেস্টার ডার্বিতে সিটিকে আবারও হারাল ম্যানইউ

প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার সিটিকে হারানো ম্যাচের দ্বিতীয় গোলটি নিয়ে বেশ আপ্লুত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলোয়াড়েরা। রবিবার এই গোলটির আগে কোচিং...

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেন মোনালিসা

বছর খানেক আগে ওয়েব সিরিজে উমা  বৌদি হয়ে নজর কেড়েছিলেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা। কিন্তু সিজন-২ তে সেই জায়গায় অভিনয় করার...

তিশার ‘শেষটা একটু ভিন্নরকম’

সম্প্রতি নতুন একটি টেলিফিল্মের কাজ শেষ করেছেন ছোট ও বড় পর্দার জনপ্রিয অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। নাম ‘শেষটা একটু...

পৃথিবীব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। যার থাবায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত ১৯ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্ত ৪ লাখ ২২ হাজারেরও বেশি মানুষ।

প্রকোপ থেকে বাঁচতে বিশ্বব্যাপী ঘরবন্দি হয়েছেন কোটি কোটি মানুষ। যাদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে ক্রীড়াঙ্গনের তারকারা। লিওনেল মেসি থেকে শুরু করে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালন্দো, রবি বোপারা ও শেন ওয়ানরা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন।

করোনার প্রকোপ থেকে রেহাই পায়নি বাংলাদেশও। এখন পর্যন্ত এখানে ৩৯ জনের শরীরের ভাইরাসটির দেখা মিলেছে, প্রাণ গেছে ৫ জনের। যেকোনো সময় মহামারি রূপ নিতে পারে করোনা। যাতে কোটি কোটি মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়বে। আর এতেই অসংখ্য খেটে খাওয়া মানুষকে কষ্টে দিনানিপাত করতে হবে।

এমন পরিস্থিতিতে প্রাণঘাতি ভাইরাসটি মোকাবিলায় এগিয়ে আসলেন দেশের ক্রিকেটাররা। চলতি মাসের বেতনের অর্ধেক অর্থ প্রদান করলেন মুশফিকুর-তামিমরা।

২৭ জন ক্রিকেটার তাদের বেতনে ৫০ শতাংশ দান করেন। যার পরিমাণ হয়েছে ৩০ লাখ টাকারও বেশি। তবে করবাবদ বাদ পড়বে ৪ লাখ টাকার বেশি। ফলে, ২৬ লাখ টাকারও বেশি ব্যয় করা হবে করোনা ইস্যুতে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে নিজের ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে এ কথা জানান জাতীয় দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।

যেখানে তিনি বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে চারদিকে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে কঠিন সময়ের মধ্যদিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে যার যার জায়গা থেকে।’

মুশফিক বলেন, ‘সেটির অংশ হিসেবে আমরা ক্রিকেটাররা একটা উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি, যেটি হয়তো অনুপ্রাণিত করতে পারে আপনাদেরও। আমরা এই মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে একটা তহবিল গঠন করেছি। এই তহবিল ব্যয় হবে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ও সাধারণ মানুষদের জন্য, যাদের গৃহবন্দী থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়।’

মি. ডিপেন্টাবল জানান, ‘তহবিলে জমা পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতো। কর কেটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। করোনার বিরুদ্ধে জিততে হলে আমাদের এই উদ্যোগ হয়তো যথেষ্ট নয়। কিন্তু যাদের সামর্থ্য আছে সবাই যদি একসঙ্গে এগিয়ে আসেন কিংবা ১০ জনও যদি এগিয়ে আসেন, এই লড়াইয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। হ্যাঁ, এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় অনেকে এগিয়ে এসেছেন। তাদের অবশ্যই সাধুবাদ জানাই।’

‘কিন্তু বৃহৎ পরিসরে যদি আরও অনেকে এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা এই লড়াইয়ে জিততে পারব ইনশাআল্লাহ। সেই সহায়তা হতে পারে ১০০, ৫০০০ কিংবা ১ লাখ টাকা দিয়ে। টাকা দিয়ে না হোক হতে পারে দুস্থ মানুষকে খাবার কিনে দিয়ে। আসুন পুরো দেশকে আমরা একটা পরিবার ভেবে চিন্তা করি এবং এই বিপদে সবাই সবাইকে সহায়তা করি। আল্লাহ আমাদের নিশ্চয়ই রক্ষা করবেন।’

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ সংবাদ

ভাসান চরে নৌবাহিনীর করোনা সচেতনতামূলক কার্যক্রম

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভাসান চরে জেলেদের মাঝে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা  ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছে নৌবাহিনী। শনিবার (৪ এপ্রিল) বিকেলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ...

পোশাক শ্রমিকদের বিষয় বিবেচনা করতে সাঈদ খোকনের আহ্বান

 বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে লাখ লাখ পোশাক শ্রমিক ঢাকা শহরে প্রবেশ করছে। ফলে পরিস্থিতি আরো ঝুঁকিপূর্ণ হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন। এ অবস্থায় তাদের বিষয়টি পুনর্বিবেচনার জন্য বাণিজ্যমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। শনিবার নগর ভবনে হটলাইনে প্রাপ্ত বিভিন্ন পরিবারের ঠিকানায় খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়ার কার্যক্রম উদ্বোধনকালে মেয়র এ আহ্বান জানান। পাশাপাশি ৯টি ওয়ার্ডের অসহায় দুস্থ, অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণের জন্য কাউন্সিলরদের হাতে তুলে দেয়া হয়। প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে ছুটির কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। অনেকের বন্ধ হয়ে গেছে আয়ের পথ। এ অবস্থায় সরকারসহ বিভিন্ন সংস্থা থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে হতদরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে। কিন্তু এমনও অনেক মানুষ আছেন যারা লোকলজ্জার কারণে দাঁড়িয়ে খাদ্যসামগ্রী নিতে আগ্রহী নন। এই সব মানুষের জন্যই হটলাইন চালু করেছে ডিএসসিসি। হটলাইনে দেয়া নির্ধারিত নম্বরে ফোন করলেই সময়মতো বাসায় খাদ্য পৌঁছে দেবেন ডিএসসিসির কর্মীরা।

শবে বরাতের দোয়া-নামাজ বাসায় আদায়ের আহ্বান ইফার

করোনাভাইরাসের সতর্কতায় আগামী বৃহস্পতিবার পবিত্র শবে বরাতে মসজিদে না গিয়ে নিজ বাসায় থেকে নামাজ ও অন্যান্য ইবাদত আদায়ে সবাইকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।...

তরুণদের আবার হুঁশিয়ার করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

তরুণদের মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ক্রমেই বাড়ছে  বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। ৬০ বছরের কম বয়সী এবং অপেক্ষাকৃত স্বাস্থ্যবান রোগীরা কেন...

সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন ঋতুপর্ণা

করোনার প্রকোপে ভারতজুড়ে লকডাউন। এই পরিস্থিতিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন টালিউড অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। করোনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর জরুরি ভিত্তিতে তৈরি ত্রাণ তহবিল এবং প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ