36 C
Dhaka
সোমবার, নভেম্বর ২৩, ২০২০

বিশ্ব জুড়ে বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের হিসাব জানালো ফেসবুক

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরেই অভিযোগ ছিল যে, তারা বিদ্বেষমূলক বক্তব্য ঠেকাতে কোনও রকম পদক্ষেপ নিচ্ছে না। এ ব্যাপারে তাদের নীতি নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় এই অভিযোগ আরও মাথাচাড়া দেয়। অবশেষে বৃহস্পতিবার তাদের সোশাল প্ল্যাটফর্মে বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের তৃতীয় ত্রৈমাসিকের একটা হিসাব প্রকাশ করেছে ফেসবুক।

ফেসবুক তাদের প্রতিবেদনে দাবি করেছে, প্রতি ১০ হাজার কন্টেন্টের মধ্যে ১০ থেকে ১১টি বিদ্বেষমূলক বক্তব্য রয়েছে। চলতি ত্রৈমাসিকেই এই ধরনের ২ কোটি ২১ লাখ কন্টেন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে তারা। তার মধ্যে কোনও কন্টেন্ট সরিয়ে দেয়া হয়েছে, কোনও ক্ষেত্রে সতর্কবার্তা দেয়া হয়েছে, আবার কোনও কোনও ক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট বন্ধও করে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ফেসবুক। বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না বলে দীর্ঘদিন ধরেই ফেসবুকের সমালোচনা করে আসছে হয়েছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। ফেসবুককে বয়কট করার হুমকিও দেয় তারা। কার্যত চাপে পড়েই শেষমেশ এ ধরনের কন্টেন্টগুলোর সংখ্যা প্রকাশের মতো পদক্ষেপ নেয় মার্ক জাকারবার্গের সংস্থা।

যে দলগুলো ফেসবুককে বয়কটের জন্য সরব হয়েছিল, তাদের মধ্যে অন্যতম ‘দ্য অ্যান্টি-ডিফেমেশন লিগের বক্তব্য, ‘ফেসবুক যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তা থেকে আসল সংখ্যাটাই জানা যাচ্ছে না যে এমন কত জন গ্রাহকের বিরুদ্ধে তারা পদক্ষেপ করেছে।’ তাদের অভিযোগ, অনেক ধরনের বিদ্বেষমূলক বক্তব্য রয়েছে। যেগুলো চিহ্নিত করার পরেও সরানো হয়নি।

ফেসবুকের নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষার দায়িত্বে থাকা গাই রসেন জানিয়েছেন, গত ১ মার্চ থেকে ৩ নভেম্বরে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিন পর্যন্ত ‘ভোটার ইন্টারফেয়ারেন্স’ নীতি ভাঙার জন্য ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম থেকে ২ লাখ ৬৫ হাজার কন্টেন্ট সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তাদের আরও দাবি, হিংসার ছাপ রয়েছে এমন ১ কোটি ৯২ লাখ কন্টেন্ট তৃতীয় ত্রৈমাসিকে এবং দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে এমন ১ কোটি ৫০ লাখ কন্টেন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। 

সূত্র: ন্যাশনাল হেরাল্ড।

সর্বশেষ সংবাদ

ডিসেম্বরে করোনার টিকা দেওয়া শুরু করবে যুক্তরাষ্ট্র

ডিসেম্বরের শুরুর দিকে করোনার টিকাদান প্রকল্প শুরুর আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা। রোববার সরকারের করোনা টিকা প্রকল্পের...

করোনার তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে, ডব্লিউিএইচও’র সতর্কতা

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হলে ২০২১ সালের শুরুর দিকে ইউরোপজুড়ে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা...

চোখ বন্ধ করে পুরো ঘটনার চতুর্দিক দেখতে পাই আমি

আমার কাজ ছিল ‘জনগণের জন্য’। এবং এখানে আমাকে যে ক্ষমতা দেয়া হয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখেছি। ব্যক্তিগতভাবে বিচারক হিসেবে...

ট্রাম্প স্বীকৃতি না দেয়ায় বাইডেনকে স্বীকৃতি দিইনি: পুতিন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে এখনও অভিনন্দন জানাননি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বাইডেন বিজয়ী হওয়ার পর দুই সপ্তাহ পেরিয়ে...

ট্রাম্পের কোভিড চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ অনুমোদন পেল

যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ) পরীক্ষামূলক একটি অ্যান্টিবডি ভিত্তিক ওষুধের জরুরি প্রয়োগ অনুমোদন দিয়েছে। সংশ্লিষ্ট মার্কিন কর্মকর্তাদের এক ঘোষণায় আজ রোববার...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ