36 C
Dhaka
রবিবার, অক্টোবর ১৮, ২০২০

করোনার পর অর্থনীতিতে যুক্তরাষ্ট্রকে টপকাতে পারে চীন

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

মহামারিতে ধুঁকছে বিশ্ব অর্থনীতি। অধিকাংশ দেশের জিডিপি (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধি ঋণাত্মক কিংবা সংকুচিত। তবে করোনা সংকট কাটিয়ে বিশ্ব অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব আরও বাড়বে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ অর্থনীতির দেশ চীন টপকাতে পারে যুক্তরাষ্ট্রকেও। এমন পূর্বাভাস আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফের।

আইমএমএফ এর পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২১ সালে বিশ্ব অর্থনীতিতে চীনের অবদান বেড়ে হবে ২৬.৮ শতাংশ। ২০২৫ সালে তা বেড়ে হতে পারে ২৭.৭ শতাংশ। ফলে বিশ্ব অর্থনীতিতে দেশভিত্তিক অবদানের নিরিখে যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে শীর্ষে উঠে যাবে চীন। আগামী বছর শীর্ষ পাঁচে থাকবে ভারত, জার্মানি ও ইন্দোনেশিয়া।

করোনায় গোটা বিশ্বে অর্থনৈতিক সংকট দেখা দিলেও অনেকটা প্রভাবমুক্ত চীন। সংক্রমণ ভাইরাসটির উৎপত্তিস্থল উহানে দমিয়ে রাখতে সমর্থ চীন সরকার দেশকে করোনামুক্ত ঘোষণা করেছে কয়েক মাস আগেই। অথচ বিশ্বে প্রকোপ চলছে। এই পার্থক্যই চীনকে প্রবৃদ্ধিতে এগিয়ে রাখবে বলে মত অর্থনীতিবিদদের।

এই পরিস্থিতিতেই বিশ্ব অর্থনীতির আগামী রূপরেখা কেমন হতে পারে, তার একটা আগাম চিত্র তুলে ধরেছে আইএমএফ। বর্তমানে ক্রয়ক্ষমতার নিরিখে বিশ্ব অর্থনীতিতে যুক্তরাষ্ট্রের অবদান সবচেয়ে বেশি— ২৩ শতাংশেরও বেশি। সেখানে চীনের অবদান ১৫ দশমিক ৫ শতাংশের মতো।

২০২৫ সালের যে অর্থনৈতিক চিত্র আইএমএফ প্রকাশ করেছে, সেই তথ্য নিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ২০২৫ সালে চীনের সেই অবদান বেড়ে হতে পারে ২৭.৭ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের তা কমে ১০.৪ শতাংশে নামতে পারে। ১৩ শতাংশ অবদান নিয়ে তালিকার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকতে পারে ভারত।

আইএমএফ এর আগের পূর্বাভাসে জানিয়েছিল, চলতি অর্থবছরে বিশ্ব অর্থনীতিনির সংকোচন হতে পারে ৪.৯ শতাংশ। কিন্তু সাম্প্রতিক পূর্বাভাসে এই সংকোচন কিছুটা কমে ৪.৪ শতাংশ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। সংস্থাটি বলছে, আগামী অর্থবছরে কোভিড পরবর্তী বিশ্বের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৫.২ শতাংশ।

পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, আগামী বছর চীনের অর্থনীতির আকার ৮ দশমিক ২ শতাংশ বাড়বে। তবে এপ্রিলে ৯ দশমিক ২ শতাংশের কথা বলা হয়েছিল। তবে এটাও বিশ্ব অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির এক চতুর্থাংশ। এ ছাড়া আগামী বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রবৃদ্ধি হবে ৩ দশমিক ১ শতাংশ; যা হবে বিশ্ব অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির ১১ দশমিক ৬ শতাংশ।

সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে কিছুটা কমেছে মৃত্যু-সংক্রমণ

বিশ্বজুড়ে আরও সাড়ে ৫ হাজার মানুষের প্রাণ গেলো করোনাভাইরাসে। গেলো ২৪ ঘণ্টায় ৩ লাখ ৭০ হাজারের বেশি...

স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে জনি ডেপের ৫০ মিলিয়ন ডলারের মামলা

প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে ৫০ মিলিয়ন ডলারের মানহানির মামলা করেছিলেন জনি ডেপ। সেই মামলার জন্য জবানবন্দি দিতে তাকে আদালতে হাজির হওয়ার...

বয়স্কদের ভ্যাকসিন প্রতিক্রিয়ায় ভূমিকা রাখতে পারে অ্যান্টি-এজিং ওষুধ

বয়সের সঙ্গে মানুষের শরীরের উন্নতি হয় না, বরং ক্ষয়ে যায়। শ্রবণ শক্তি হ্রাস পায়, ত্বক মলিন হয়ে যায় এবং হাড়ের জোড়গুলোও দুর্বল...

করোনার পর অর্থনীতিতে যুক্তরাষ্ট্রকে টপকাতে পারে চীন

মহামারিতে ধুঁকছে বিশ্ব অর্থনীতি। অধিকাংশ দেশের জিডিপি (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধি ঋণাত্মক কিংবা সংকুচিত। তবে করোনা সংকট কাটিয়ে বিশ্ব অর্থনীতিতে চীনের প্রভাব...

একদিনে মালয়েশিয়ায় সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

মালয়েশিয়ায় মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। শনিবার নতুন করে ৮৬৯ জনের দেহে ভাইরাসটির সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে; যা দেশটিতে এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ