36 C
Dhaka
রবিবার, জুলাই ১২, ২০২০

বৈশ্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতে ইউরোপে মার্কিন সেনাদের অবস্থান জরুরি: ন্যাটো মহাসচিব

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

ইউরোপে মার্কিন সেনা উপস্থিতি বৈশ্বিক নিরাপত্তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন সামরিক জোট ন্যাটোর মহাসচিব ইয়েনস স্টল্টেনব্যার্গ। সম্প্রতি জার্মানি থেকে একবারে ৯ হাজারের বেশি মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। এটি কার্যকর হলে জার্মানিতে মার্কিন সেনা সংখ্যা কমে ২৫ হাজারে নেমে আসবে। এমন প্রেক্ষিতেই ওই মন্তব্য করেন স্টল্টেনব্যার্গ। খবর ডয়েচে ভেলে।

খবরে বলা হয়, স্টল্টেনব্যার্গ জার্মানিকেও আরো ভূমিকা পালন করার আহবান জানিয়েছেন। এর আগে ন্যাটো জার্মানিকে প্রতিরক্ষা ব্যয় বাড়ানোর শর্ত দিয়েছিল। তবে জার্মানি তাতে রাজি না হওয়ায় সেখান থেকে প্রায় সাড়ে নয় হাজার সেনা ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দেন।

তার অভিযোগ, জার্মানি ন্যাটোতে কর্তব্যবিমুখের মত আচরণ করছে। তবে জার্মানির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রাম্প-কারেনবাউয়ার ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাস ট্রাম্পের ঘোষণার সমালোচনা করেছেন। ডয়চে ভেলের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ন্যাটোর মহাসচিব বলেন, ন্যাটো সদস্যদের মধ্যে সবসময় মতপার্থক্য ছিল। কিন্তু তা সত্বেও ন্যাটোকে ইতিহাসের সবচেয়ে সফল জোট মনে করেন তিনি। এর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে স্টল্টেনব্যার্গ জানান, ন্যাটো গঠনের মূল লক্ষ্য ছিল সদস্য রাষ্ট্রগুলোর একে অন্যকে রক্ষা করা। এই কাজ করতে গিয়ে সবাই সবসময় একমতে পৌঁছেছে। ফলে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির মধ্যে এখন যে মতের পার্থক্য দেখা যাচ্ছে তা কেটে যাবে বলে আশা করছেন ন্যাটো মহাসচিব। তিনি বলেন, গতসপ্তাহে ন্যাটোর প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের এক বৈঠক হয়েছে। সেখানে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন যে, জার্মানি থেকে সেনা সরানোর ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট কিছু নিশ্চিত করেন নি।

ন্যাটো মহাসচিব জানান, জার্মানি থেকে সেনা সরানোর ঘোষণার আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে তার কথা হয়েছে। সেসময় তিনি ট্রাম্পকে জানান, ইউরোপে যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতি ন্যাটোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এটি যুক্তরাষ্ট্রের জন্যেও আবশ্যক। স্টল্টেনব্যার্গ বলেন, ইউরোপে শান্তি ও স্থিতিশীলতা উত্তর অ্যামেরিকার নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয়। এটাও মনে রাখতে হবে যে, জার্মানি ও ইউরোপে যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতি শুধুমাত্র ইউরোপকে রক্ষা নয়, বরং মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা, আফগানিস্তানসহ অন্যান্য জায়গায়ও মার্কিন শক্তি দেখানোর একটি বিষয়।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

সর্বশেষ সংবাদ

অর্থের লোভে বিয়ে করিনি, স্বামীর থেকেও বেশি আয় করি: মোনালি

কাউকে না জানিয়ে বিয়ে করেছিলেন মোনালি ঠাকুর। তার স্বামী মাইক পেশায় ব্যবসায়ী, থাকেন সুইজারল্যান্ডে। হোটেলের ব্যবসা তার।...

ঈদের আগে খুলছে না কক্সবাজারের হোটেল-পর্যটন স্পট

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত, পর্যটন স্পট এবং হোটেলগুলো ঈদুল আযহার আগে খোলা হবে না। কক্সবাজার জেলায় কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সরকার...

করোনার টিকা নিয়ে বাণিজ্য না করার অনুরোধ বিল গেটসের

চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বরে করোনভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর থেকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। প্রতিদিন দীর্ঘ হচ্ছে লাশের...

বাংলাদেশে ভারতের নতুন হাইকমিশনার হচ্ছেন বিক্রম

রীভা গাঙ্গুলি দাশকে পদোন্নতি দিয়ে বাংলাদেশে নতুন হাইকমিশনার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। শনিবার হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, রীভার উত্তরসূরি হিসেবে বিক্রম দোড়াইস্বামী দ্রুত ঢাকায়...

তুরস্কের হাজিয়া সোফিয়ায় ৮৬ বছর পর আজানের ধ্বনি

তুরস্কের প্রাচীন নগরী ইস্তাম্বুলের ঐতিহাসিক আয়া সোফিয়া জাদুঘরকে পুনরায় মসজিদে রূপান্তরে আইনত আর কোনো বাধা নেই বলে গত ১০ জুলাই রায় জানিয়েছেন...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ