36 C
Dhaka
বুধবার, জুন ৩, ২০২০

করোনায় দুইবার মৃ’ত্যু ঘোষণা করা মেয়েটি যে ভাবে বেঁচে উঠলো

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের যে প্রকোপ চলছে তা এখনো থামেনি। বিশ্বের এক প্রান্ত থেকে শুরু করে অপর প্রান্ত সব খানেই করোনা ছড়িয়ে গেছে মহামারি আকারে। আর এই করোনার কারনে এখনও বেশ স্তব্ধ হয়ে আছে পুরো পৃথিবী। আর এই করোনাকে ঘিরেই এখন প্রতিনিয়ত শোনা যায় নানা ধরনের অবিশ্বাস্য ঘটনা। এবার তেমনই একটি ঘটনার সক্ষী হলো একটি তরুনী।মেয়েটিকে দুইবার মৃ’/ ত বলে ঘোষণা করার পরও আশ্চর্যজনকভাবে বেঁচে উঠেছে। যুক্তরাষ্ট্রের কভিংটন শহরের বাসিন্দা ১২ বছরের মেয়ে জুলিয়েট ডেলির সঙ্গে এমনটি ঘটে।

মার্কিন স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, আমেরিকার অনেক শিশু ’মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটোরি সিনড্রোমে’ আক্রান্ত। এ জন্য করোনা ভাইরাসকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা।

মাস খানেক আগে জুলিয়েটও ’মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটোরি সিনড্রোমে’ আক্রান্ত হয়।

প্রথমে কিছু বুঝতে পারেননি জুলিয়েটের অভিভাবকরা। কারণ তার শরীরে কোনও রকম অস্বস্তি বা ভাইরাসের উপসর্গ ছিল না। কিন্তু এর এক সপ্তাহ পর থেকে জ্বর, বমি আর তলপেটে ব্যথা শুরু হয় মেয়েটির।

কয়েক দিন পর জুলিয়েটের অভিভাবকরা লক্ষ্য করেন মেয়ের ঠোঁট নীলচে ফ্যাকাসে হয়ে গিয়েছে। এরপর মেয়েকে নিয়ে তারা ছুটে যান হাসপাতালে।

চিকিৎসকরা জুলিয়েটকে পরীক্ষা করে দেখেন। তার মধ্যে করোনা ভাইরাসের সাধারণ লক্ষণ দেখতে না পেয়ে অন্যান্য পরীক্ষার পরামর্শ দেন।

ঐ হাসপাতালের রেডিয়োলজি বিভাগের প্রধান জেনিফার মনে করেন, জুলিয়েটের হয়তো অ্যাপেন্ডিসাইটিসে বা পাকস্থলীতে কোনও ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ হয়েছে। এই অনুমানের ভিত্তিতেই চিকিৎসা শুরু হয়। কিন্তু দ্রুত তার স্বাস্থ্যের অবনতি হতে শুরু করে।

চিকিৎসকরা দেখেন, জুলিয়েটের হৃৎস্পন্দনের গতি অস্বাভাবিকভাবে কমে গিয়েছে। সাধারণত, মিনিটে ৭০ থেকে ১২০ হৃৎস্পন্দন স্বাভাবিক। সেখানে জুলিয়েটের হৃৎস্পন্দন ছিল মিনিটে মাত্র ৪০ বার।

এরপরই তাকে জরুরি বিভাগে নিয়ে চিকিৎসা শুরু করা হয়। কিন্তু একটা সময় নিস্তেজ হয়ে যায় জুলিয়েট।

নিয়ম মেনে সব রকম চেষ্টা করে দেখার পর চিকিৎসকরা জুলিয়েটকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃ’/ ত ঘোষণার মিনিট খানেক পর চিকিৎসকদের চমকে দিয়ে কেঁপে কেঁপে উঠতে থাকে মেয়েটির শরীর।

চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে দেখেন। এরপর কিছুক্ষণের জন্য জুলিয়েটের হৃৎস্পন্দন প্রায় বন্ধ হয়ে গেলেও ফের সচল হয়। মেয়েটির ফুসফুসে কোনোভাবে রক্ত ঢুকে যাওয়ার ফলে এমনটা হয়েছে বলে জানান চিকিৎসকরা। এমনটা আরো একবার, মোট দুইবার হয়েছে জুলিয়েটের সঙ্গে।

চিকিৎসকরা জানান, জুলিয়েটের এই অবস্থার জন্য আসলে দায়ী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। খবর: জিনিউজ

এ দিকে করোনায় বর্তমানে পৃথিবীতে সব থেকে খারাপ অবস্থার মধ্যে দিয়ে সময় পাড় করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বব্যাপি করোনায় যে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে তার সিংহ ভাগই এই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হয়েছে। এ ছাড়াও পাল্লা দিয়ে সেখানে বড়ছে করোনায় প্রাণ হানীর সংখ্যাও অনেক বেশি। আর কোন প্রকার ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত শুধু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নয় বিশ্বের কোন দেশই মুক্তি পাবে না এই করোনা থেকে।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রাথমিকে ২০২১ সালে দেওয়া হবে না নতুন শিক্ষাক্রমের বই

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রভাবে আগামী শিক্ষাবর্ষে নতুন কারিকুলামের (শিক্ষাক্রম) বই দেওয়া হচ্ছে না।গতকাল মঙ্গলবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন...

দেশের কোথাও খাদ্যের অভাব হয়নি: হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন,  সরকারের তৎপরতায় মানুষ করোনায় সংকট মোকাবিলা করছে। জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা...

মানুষের দৃষ্টিশক্তি ফেরাবে ‘বায়োনিক চোখ’

যারা দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন চিকিৎসার মাধ্যমে তারা সেই দৃষ্টি ফিরে পেতে পারেন। কিন্তু যাদের চোখ নেই, কোনো কারণে চোখ হারিয়ে ফেলেছেন, তারা কি...

যুক্তরাষ্ট্রে কারফিউ অমান্য করে চলছে বিক্ষোভ, পুলিশ-সেনাবাহিনীর সমর্থন

গত সপ্তাহে মিনিয়াপোলিসে এক পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে হওয়া বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রে ৪০টিরও বেশি শহরে জারি...

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যার ‘মূল হোতা’ ড্রোন হামলায় নিহত

অতর্কিত হামলা চালিয়ে লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যায় ‘মূল হোতা’ বলে অভিযুক্ত মিলিশিয়া নেতা খালেদ আল-মিশাই দেশটির বিমান...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ