36 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, মে ২৮, ২০২০

করোনা: নিরাপদ দূরত্ব নিশ্চিত করতে দোকানের সামনে গোল বৃত্ত

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করেছে প্রশাসন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে বলা হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সামগ্রীর দোকান ছাড়া সকল দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

ওষুধের দোকানে ভিড় বেড়েছে।তাই ক্রেতাদের মধ্যে কম করে এক মিটার দূরত্ব রাখতে সাদা রং দিয়ে রাস্তার ওপর গোল বৃত্ত এঁকে দেয়া হচ্ছে।

বুধবার (২৫ মার্চ) দুপুরে পটুয়াখালী শহরের বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনের সড়কে ওই গোল বৃত্ত আঁকার কাজ করছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উজ্জ্বল সিকদার।

ওই গোল চিহ্নের মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকেছেন ক্রেতারা। একটি বৃত্ত ফাঁকা হলেই পরেরজন এগিয়ে যাচ্ছেন। এভাবেই শহরের মুসলিম গোরস্থানের পেছনের সড়কে ফার্মেসিতে ওষুধ কিনতে হচ্ছে সবাইকে।

মেসার্স আনিকা ফার্মেসির মালিক মো. জাকির হোসেন গাজী বলেন, করোনাভাইরাস আতঙ্কে আমরা সবাই। প্রশাসন বলছে, বাঁচতে হলে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। কিন্তু কেউ সেটা মানছে না। দুপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উজ্জ্বল সিকদার ভাই দোকানের সামনের সড়কে ওই সুরক্ষারেখা এঁকেছেন। এখন ক্রেতারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দোকানে আসছে। এটা অনেক ভালো হয়েছে। অন্য দোকানের সামনে এমন রেখা থাকলে ভালো হবে।

শহরে বাসিন্দা আবুল ফরাজি জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে দোকানের সামনে বৃত্তের মধ্যে দাঁড়িয়ে আমরা ওষুধ কিনেছি। পুরো জেলা শহরের নিত্যপণ্যের দোকানের সামনে এমন উদ্যোগ নিলে ভালো হতো। নিয়ম মানলে আমাদের জন্য ভালো।

উজ্জ্বল সিকদার বলেন, করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ভালো। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নিজ উদ্যোগে আজ তিনটি ওষুধের দোকানের সামনে সুরক্ষারেখা এঁকেছি। প্রতিটি দোকানের সামনে ৮টি করে গোল বৃত্ত এঁকেছি। সবাইকে সচেতন করতে আমার এ ক্ষুদ্র প্রয়াস। সবাই সচেতন হলে এ ভাইরাস থেকে বাঁচতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

সর্বশেষ সংবাদ

বিশ্বে করোনায় সুস্থ প্রায় ২৫ লাখ মানুষ

কোনভাবেই থামছে না নিয়ন্ত্রণহীন করোনা ভাইরাসের দাপট। যেখানে নতুন করে ১ লাখের বেশি মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন।...

বিদ্যানন্দের রান্নাঘরে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি!

দ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের খিলগাঁওয়ের রান্নাঘরে সবাই তখন ব্যস্ত। দুপুরে বুফে খাবারের আয়োজন চলছে। সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের সবাই আসবেন ইদের বিশেষ বুফে খাবারের নিমন্ত্রণে। রান্নার...

মায়ের দুধে করোনা সংক্রমণ হয় না

যথাযথভাবে মায়েরা শিশুকে দুধ খাওয়ালে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হয় না। বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস বিষয়ে নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক...

করোনাভাইরাস: বিশ্বজুড়ে ৩ লাখ ৫৭ হাজার মৃত্যু

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৫৭ হাজারের বেশি। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সকাল পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য...

রাজশাহীতে ঝরে পড়েছে ৩শ’ কোটি টাকার আম, চিন্তিত বাগান মালিকরা

একের পর এক ঝড়ের তাণ্ডবে বৃহত্তর রাজশাহী অঞ্চলের আম বাগানগুলো থেকে অনেক আম ঝরে পড়ায় চিন্তিত বাগান মালিকরা। ঘূর্ণিঝড় আম্পান ও বুধবারের (২৭...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ