36 C
Dhaka
মঙ্গলবার, জুন ২, ২০২০

করোনা: নিরাপদ দূরত্ব নিশ্চিত করতে দোকানের সামনে গোল বৃত্ত

অবশ্যই পরুন

করোনায় মা’রা যাওয়া দুদক পরিচালকের স্বজন বলে দিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার টোটকা

করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে হানা দিয়েছে প্রায় ১ মাসের বেশি হয়ে গেল। আর এই এক মাসের মধ্যে করোনা বেশ ছড়িয়েছে...

রাশিয়ায় বাড়ছে করোনা, সামরিক বাজেট ব্যবহারের নির্দেশ পুতিনের

বিশ্বে করনোভাইরাসের মারাত্মক হানার মধ্যেও রাশিয়ায় শুরুতে খুব বেশি প্রভাব দেখা দেয়নি। তবে সম্প্রতি দেশটিতে ভয়ংকর আকার নিতে শুরু...

সিঙ্গাপুরে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড

বুধবার একদিনে সিঙ্গাপুরে ৪৪৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দ্বীপরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা...

ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনের গল্প

আজকে আমি পরিচয় করিয়ে দিবো আমার ফ্যামিলি বাইকার হয়ে উঠার পিছনে অন্যতম সাহায্যকারী আমার বৌ Sharmin Upoma কে। সে শুধু...

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করেছে প্রশাসন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে বলা হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সামগ্রীর দোকান ছাড়া সকল দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

ওষুধের দোকানে ভিড় বেড়েছে।তাই ক্রেতাদের মধ্যে কম করে এক মিটার দূরত্ব রাখতে সাদা রং দিয়ে রাস্তার ওপর গোল বৃত্ত এঁকে দেয়া হচ্ছে।

বুধবার (২৫ মার্চ) দুপুরে পটুয়াখালী শহরের বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সামনের সড়কে ওই গোল বৃত্ত আঁকার কাজ করছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উজ্জ্বল সিকদার।

ওই গোল চিহ্নের মধ্যে দাঁড়িয়ে থেকেছেন ক্রেতারা। একটি বৃত্ত ফাঁকা হলেই পরেরজন এগিয়ে যাচ্ছেন। এভাবেই শহরের মুসলিম গোরস্থানের পেছনের সড়কে ফার্মেসিতে ওষুধ কিনতে হচ্ছে সবাইকে।

মেসার্স আনিকা ফার্মেসির মালিক মো. জাকির হোসেন গাজী বলেন, করোনাভাইরাস আতঙ্কে আমরা সবাই। প্রশাসন বলছে, বাঁচতে হলে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। কিন্তু কেউ সেটা মানছে না। দুপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা উজ্জ্বল সিকদার ভাই দোকানের সামনের সড়কে ওই সুরক্ষারেখা এঁকেছেন। এখন ক্রেতারা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দোকানে আসছে। এটা অনেক ভালো হয়েছে। অন্য দোকানের সামনে এমন রেখা থাকলে ভালো হবে।

শহরে বাসিন্দা আবুল ফরাজি জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে দোকানের সামনে বৃত্তের মধ্যে দাঁড়িয়ে আমরা ওষুধ কিনেছি। পুরো জেলা শহরের নিত্যপণ্যের দোকানের সামনে এমন উদ্যোগ নিলে ভালো হতো। নিয়ম মানলে আমাদের জন্য ভালো।

উজ্জ্বল সিকদার বলেন, করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ভালো। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নিজ উদ্যোগে আজ তিনটি ওষুধের দোকানের সামনে সুরক্ষারেখা এঁকেছি। প্রতিটি দোকানের সামনে ৮টি করে গোল বৃত্ত এঁকেছি। সবাইকে সচেতন করতে আমার এ ক্ষুদ্র প্রয়াস। সবাই সচেতন হলে এ ভাইরাস থেকে বাঁচতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

সর্বশেষ সংবাদ

কপিল-ইমরানের নামে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের প্রস্তাব

অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড অ্যাশেজ দ্বৈরথ থাকার পরও ভারত-পাকিস্তানের মাঠের লড়াই ক্রিকেটকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। দুই দেশের বল-ব্যাটের এই...

করোনায় আক্রান্ত মোহেনা কুমারী

ভারতের জনপ্রিয় টিভি সিরিয়াল ‘ইয়ে রিসতা ক্যা কহেলতা হ্যায়’ এর অভিনেত্রী মোহেনা কুমারীসহ পরিবারের ৬ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তারা সবাই হাসপাতলে...

১২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ

নতুন ১ হাজার ২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়। আজ মঙ্গলবার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রেস রিলিজে বলা...

করোনার শক্তি কমে যাওয়ার তথ্য ভিত্তিহীন : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনাভাইরাস ধীরে ধীরে তার ‘শক্তি হারাচ্ছে’ বলে ইতালির এক জ্যেষ্ঠ চিকিৎসকের দাবি উড়িয়ে দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ইতালির পাশাপাশি বিশ্বের বেশ কয়েকজন...

১৩শ’ তে ১২৭৪ পেয়ে রাজশাহী বোর্ডে প্রথম নাফিস

এসএসসি পরীক্ষায় রাজশাহী বোর্ডে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে প্রথম হয়েছেন নাফিস উদ্দীন ফুয়াদ। তিনি মোট ১৩০০ নম্বরের পরীক্ষায় ১২৭৪ পেয়েছেন। এবার এসএসসিতে পাশের...

এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ